গোফরান পলাশ, পটুয়াখালী: পায়রা সমুদ্র বন্দরের ভূমি অধিগ্রহন জটিলতায় পড়ে
২১৪ পরিবার বেড়িবাধেঁর বাহিরে ঝুপড়ি ঘর তুলে মানবেতর জীবনযাপন করছে।
সরকারের সিদ্ধান্ত ও দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের স্বার্থে একাত্মতা পোষন
করে শত বছরের পৈত্রিক সহায় সম্পত্তি ছেড়ে দিয়ে এখন অধিগ্রহনের টাকা ও
পুনর্বাসনের জন্য পটুয়াখালী ভূমি হুকুম দখল শাখা ও পায়রা বন্দর পুনর্বাসন
প্রকল্প র্ডপ’র পেছনে ঘুরে বেড়াচ্ছে আসহায় পরিবার গুলো।

জানা যায়, পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের চাড়িপাড়া গ্রামে
একসময় যারা গেরস্থ পরিবার ছিল আজ তারা সব হারিয়ে বেড়িবাঁধের বাহিরে ঝুপড়ি
ঘর তুলে আশ্রয় নিয়েছেন। ভূমি হুকুম দখল শাখা পটুয়াখালী ও পায়রা বন্দর
পুনর্বাসন প্রকল্প র্ডপ’র একশ্রেনীর দালাল চক্রের কারনে বিভিন্ন মামলার
জটিলতায় ভুক্তভোগী ২১৪ পরিবার এখন মানবেতর জীবন যাপন করছে। এই পরিবার
গুলো বসতবাড়ি, গাছ-পালার টাকা পেলেও তাদের ভাগ্যে জোটেনি আবাসনের ঘর।

ভূমি অধিগ্রহনে সব হারানো চান মিয়া, আকবর ফকির, বাবুল মিয়া, মোশারেফ
হাওলাদার, রিমন হাওলাদার বলেন, একটি দালাল চক্র মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদের
জমির টাকা আ কে রেখেছে। একদিন আমাদের সব ছিল এখন অমাদের কিছু নাই। আমরা
বেড়িবাধেঁর বাহিরে ঝুপড়ি ঘর তুলে আশ্রয় নিয়েছি। আমরা এখনও আবাসনের ঘর
পাইনি।

লালুয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. রবিউল ইসলাম বলেন,
বেড়িবাঁধে বসবাস করা এই পরিবার গুলো খুব অসহায়। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে
যতুটুকু ত্রান পেয়েছি তা নিয়ে তাদের পাশে দাড়িয়েছি।

পায়রা বন্দর পুনর্বাসন প্রকল্প র্ডপ’র ডেপুটি টিম লিডার গোলাম সরোয়ার
টিপু জানান, অধিগ্রহনকৃত পরিবারদের প্রতি আমার অনুরোধ র্ডপ’র কোন
মাঠকর্মী অথবা কর্মকর্তা যদি অপ্রীতিকর কোন ঘটনার সাথে জড়িয়ে থাকে আমরা
যথাযথ ব্যবস্থা নিব।

লালুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত হোসেন তপন বিশ্বাস বলেন, সংঘবদ্ধ
দালাল চক্র বানোয়াট  বিভিন্ন মামলা দিয়ে এই মানুষ গুলোকে হয়রানি করে
আসছে। বসত বাড়ির টাকা পেলেও মামলা থাকার কারনে তারা অধিগ্রহনের টাকা এবং
পুনর্বাসনের  ঘর পায়নি।

পটুয়াখালী ভূমি হুকুম দখল শাখা কর্মকর্তা মো. আল ইমরান বলেন, মামলা চলমান
থাকা অবস্থায় আমরা অধিগ্রহনকৃত টাকা দিতে পারিনা।

পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (প্রশাসন) ও যুগ্ম সচিব মহিউদ্দিন আহমেদ
খান বলেন, মামলা জটিলতার কারনে যে পরিবার গুলো এখন প্রর্যন্ত আবাসন
পায়নি, তাদের মামলা দ্রুত সমাধান করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে