পটুয়াখালী সংবাদদাতা: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় সৎ মেয়েকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে বাবা ইউসুফ ফকির (৪০) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় রবিবার রাতে ভিকটিম কিশোরী’র মা বাদী হয়ে মহিপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ রাতেই ইউসুফ ফকিরকে আমতলী এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে।
পুলিশ জানায়, পাঁচ বছর আগে ওই কিশোরী মেয়ের মা দ্বিতীয় স্বামী হিসেবে ইউসুফ ফকিরকে বিয়ে করে কক্সবাজারে বসবাস করতেন। করোনা মহামারীর মধ্যে লকডাউনে স্বামীর বাড়ি কুয়াকাটার মেলাপাড়ায় অবস্থান করছিল। ১৩ জুলাই ওই কিশোরী তার নানা বাড়ি আমতলী থেকে কুয়াকাটার মেলাপাড়া এলাকায় মায়ের বাড়িতে বেড়াতে আসে। এসময় ইউসুফ ওই কিশোরীকে বেড়াতে নিয়ে যাবার কথা বলে কুয়াকাটা সৈকতের ঝাউবাগান এলাকায় নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। ঘটনার পাঁচ দিন পর ওই কিশোরীর মা তার নানা বাড়িতে এলে পুরো বিষয়টি মাকে জানায়।
মহিপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, রোববার (১৮ জুলাই) ধর্ষিতার মা বাদি হয়ে মহিপুর থানায় ইউসুফ ফকিরকে আসামী করে একটি মামলা করেছে। অভিযুক্ত ইউসুফ ফকিরকে আমতলী পুলিশের সহয়তায় গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার সকালে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে