দর্পণ রিপোর্ট:  দৈনিক জনকণ্ঠের উদ্ভুত পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)। একই সঙ্গে গত ১১ এপ্রিল জনকন্ঠ অফিসের সামনে অনভিপ্রেত ঘটনা অনুসন্ধানে সাংগঠনিক সম্পাদকের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। এছাড়াও শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে অবিলম্বে জনকন্ঠের চাকুরিচ্যূত সাংবাদিকদের পুনর্বহালের দাবি জানানো হয়েছে।
আজ ১৩ এপ্রিল, ২০২১ মঙ্গলবার ডিইউজে কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংগঠনের নির্বাহী পরিষদের সভায় সভাপতিত্ব করেন ডিইউজে সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ।
ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপুর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন ডিইউজে সহ-সভাপতি এম এ কুদ্দুস, যুগ্ম-সম্পাদক খায়রুল আলম, কোষাধ্যক্ষ আশরাফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এ জিহাদুর রহমান জিহাদ, প্রচার সম্পাদক আছাদুজ্জামান, জনকল্যাণ সম্পাদক সোহেলী চৌধুরী, দফতর সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস চৌধুরী সোহেল, নির্বাহী সদস্য শাহনাজ এলিস ও রাজু হামিদ, জনকণ্ঠ ইউনিট চীফ রাজন ভট্টাচার্য ও ডেপুটি চীয় পলাশ দাস, নাগরিক টিভির ইউনিট চীফ শাহনাজ শারমীন, আরটিভির ইউনিট চীফ সাইখুল ইসলাম উজ্জ্বল প্রমুখ।
সভায় করোনা সংক্রমণের বেড়ে যাওয়ার অজুহাতে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ছাঁটাইয়ের পায়তার বন্ধের দাবি জানানো হয়। বলা হয়, এ সময় ছাটাইয়ের নামে সাংবাদিকদের মানবিক বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। যা দায়িত্বশীলতার পরিপন্থী। এ ক্ষেত্রে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ডিইউজে নির্বাহী পরিষদ।
হঠাৎ করে অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘সারক্ষণ’ বন্ধ করে দেওয়ায় গভীর উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছে ডিইউজে। ইউনিয়ন নেতারা মনে করেন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত সংবাদ মাধ্যম থেকে সাংবাদিকদের নিয়োগ দিয়ে বন্ধ করে দেওয়ায় তৈরি হচ্ছে বড় ধরণের অস্থিরতা। অবিলম্বে সারাক্ষণ’র সাংবাদিক-কর্মচারীদের আর্থিক পাওনা পরিশোধের জোরালো দাবি জানিয়েছেন ডিইউজের নেতারা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে