দর্পণ ডেস্ক : প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় খল অভিনেতা সাদেক বাচ্চু। রাজধানীর মহাখালীর ইউনিভার্সাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার বেলা ১২টার কিছু সময় পর তিনি মারা যান।

সাদেক বাচ্চুর মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার স্ত্রী শাহানা এবং সহকারী পরিচালক মাসুদ রানা।

গত ৬ সেপ্টেম্বর জ্বর ও তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সাদেক বাচ্চু। সেখানে অভিনেতা করোনা টেস্ট করা হলে ১১ সেপ্টেম্বর সেটির ফল পজিটিভ আসে।

এর পরদিনই সাদেক বাচ্চুকে মহাখালীর ইউনিভার্সাল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এই হাসপাতালটির কোভিড ইউনিটের সিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাকে রাখা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায়ই আজ সোমবার তার মৃত্য হল।

সাদেক বাচ্চু ছিলেন একাধারে অভিনেতা, নাটক রচয়িতা, নাট্য নির্দেশক। তিনি বাংলাদেশ ডাক বিভাগের একজন অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তাও। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য পরিচিতি লাভ করলেও তিনি মঞ্চ, বেতার ও টেলিভিশনে অভিনয় করেছেন।

১৯৮৫ সালে শহিদুল আমিন পরিচালিত ‘রামের সুমতি’তে অভিনয়ের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে। সিনেমাতে খল চরিত্রেই তাকে সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। ২০১৮ সালে নায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’ ছবিতে খলচরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

তবে কয়েকটি ছবিতে তিনি পজিটিভ রোলও করেছেন। তিন যুগের কেরিয়ারে প্রায় পাঁচশ’র মতো ছবিতে অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে অভিনয় করেছেন সাদেক বাচ্চু।

প্রসঙ্গত, সাদেক বাচ্চুর আসল নাম মাহবুব আহমেদ সাদেক। চাঁদপুরে দেশের বাড়ি হলেও জন্ম তার ঢাকাতেই। সিনেমার কিংবদন্তি মানুষ এহতেশাম ‘চাঁদনী’ চলচ্চিত্রে তার নাম বদলে সাদেক বাচ্চু করে দেন। সেই থেকেই তিনি এ নামে পরিচিত।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে