দর্পণ ডেস্ক : দেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো এখন থেকে প্রতি ডলার সর্বোচ্চ ১০৮ টাকা হিসেবে প্রবাসী আয় (রেমিট্যান্স) সংগ্রহ করবে। রফতানি বিল নগদায়ন হবে প্রতি ডলার ৯৯ টাকায়। অর্থাৎ রেমিট্যান্স আহরণ ও রফতানি বিল নগদায়নে ব্যাংকগুলোর গড় খরচ হবে ১০৩ টাকা ৫০ পয়সা। এর সঙ্গে এক টাকা যোগ করে আমদানিকারকের কাছে ডলার বিক্রি করবে ব্যাংকগুলো। এর ফলে এলসি সেটেলমেন্টের জন্য ডলার বিক্রি হবে ১০৪ টাকা ৫০ পয়সায়। এতে কিছুটা খরচ কমবে আমদানিকারকদের।
রবিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সোনালী ব্যাংকের বোর্ড রুমে অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেদা) বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত হয়। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) থেকে এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হবে।
বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বাফেদার চেয়ারম্যান এবং সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আফজাল করিম, এবিবির চেয়ারম্যান সেলিম আর এফ হোসেনসহ বিভিন্ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদারের সভাপতিত্বে এক বৈঠকে এ দুটি সংগঠনের হাতে ক্ষমতা দেয়া হয়। জানা যায়, বর্তমানে ব্যাংকগুলো রফতানি আয় এনক্যাশমেন্ট করছে ৯৯ টাকা থেকে শুরু করে ১০২ টাকায়। এছাড়া ব্যাংকগুলো রেমিট্যান্স সংগ্রহ করছে ১০৮ টাকা থেকে ১১০ টাকায়। এদিকে এক্সচেঞ্জ হাউজগুলো থেকে রেমিট্যান্সের ডলার কিনতে ব্যাংকগুলোকে সর্বোচ্চ ১১৪ টাকা রেট দিতে হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে