দর্পণ ডেস্ক : মালদ্বীপে ভয়াবহ আগুনে পুড়ে ১০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে বাংলাদেশিও রয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) ভোরে মালদ্বীপের রাজধানী শহর মালেতে একটি গ্যারেজে আগুন লেগে প্রাণহানির এই ঘটনা ঘটে। মালদ্বীপের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু।
এদিকে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করেনি মালদ্বীপ সরকার। তবে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে সম্ভবত প্রতিবেশী দেশের শ্রমিকরা অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন। রাজধানী মালে থেকে দেশটির একজন শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা দ্য হিন্দুকে বলেছেন, ‘অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য কাজ করছে মালদ্বীপ পুলিশ।’
দ্য হিন্দুর প্রতিবেদন অনুযায়ী, মালদ্বীপের একজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে ৯ জন ভারতীয় এবং একজন বাংলাদেশি নাগরিক। এ ঘটনার পর মালদ্বীপের রাজনৈতিক দলগুলো বিদেশি কর্মীদের বসবাসের অবস্থা সম্পর্কে সরকারের সমালোচনা করেছে।
বৃহস্পতিবার সকালে এক টুইটে মালদ্বীপের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ (এনডিএমএ) বলেছে: ‘রাজধানী মালেতে আগুনে বাস্তুচ্যুত এবং ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য শহরের মাফান্নু স্টেডিয়ামে একটি কেন্দ্র স্থাপন করেছে এনডিএমএ। সেখানে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণসহ অন্যান্য সহায়তা প্রদানের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’ তবে সংস্থাটির টুইটে হতাহতের কোনো সংখ্যা উল্লেখ করা হয়নি।
কর্মকর্তারা বলেছেন, আগুনে ধ্বংসপ্রাপ্ত একটি ভবনের ওপরের তলা থেকে ১০টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ওই ভবনের নিচতলা গাড়ি মেরামতের গ্যারেজ হিসেবে ব্যবহার করা হয় এবং বৃহস্পতিবার রাতে সেখান থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়।
মালদ্বীপের ফায়ার সার্ভিসের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, আমরা ১০টি মৃতদেহ উদ্ধার করেছি। আগুন নেভাতে তাদের প্রায় চার ঘণ্টা সময় লাগে বলেও জানান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে