দর্পণ ডেস্ক : ২০১০ সালে কক্সবাজারে হওয়া প্রথম সাফ থেকে শুরু করে সিনিয়র পর্যায়ে গত পাঁচটি আসরে ভারতকে কখনো হারাতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। মঙ্গলবার কাঠমান্ডুতে এক যুগের সেই অপেক্ষার অবসান হলো। সিরাত জাহানের জোড়া গোলে বাংলাদেশ ৩-০ গোলে হারিয়ে দিয়েছে ভারতকে। এই জয়ের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনালে নাম লিখিয়েছেন সাবিনা খাতুনরা।
ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের মেয়েদের এমন আধিপত্য এর আগে দেখা যায়নি। ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আক্রমণে আক্রমণে কোণঠাসা করে রেখেছিল তারা ভারতীয়দের। গোল আসতে পারত সপ্তম মিনিটেই। সানজিদা আক্তারের ক্রসে সিরাত হেডে বল জালে ঠেলেছিলেন, কিন্তু তার আগে গোলরক্ষককে ফাউলের বাঁশি বাজিয়েছেন রেফারি। তবে বাংলাদেশকে সেই গোল পেতে অপেক্ষা করতে হয়নি খুব বেশি। সাবিনার কাছ থেকে বল পেয়ে কৃষ্ণা রানী থ্রু পাস বাড়ান বক্সে, সিরাত গোলরক্ষের পাশ দিয়ে সেই বল জালে ঠেলে দেন। ভারতের বিপক্ষে এর আগে কোনো ম্যাচে লিড নিতে না পারা বাংলাদেশ এই গোলের পর যেন আরো আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে। সিরাতের সঙ্গে দেয়া-নেয়া করে ৩৪ মিনিটে কৃষ্ণাই বাঁ দিকে ঢুকে বল জালে পাঠিয়েছেন। বিরতিতে যায় বাংলাদেশ তাই ২-০-তে এগিয়ে থেকে।
বিরতি থেকে ফিরে ভারতকে ম্যাচে ফিরতে না দিয়ে উল্টো যেন জয়টা নিশ্চিত করতে চায় বাংলাদেশ। সাবিনার থ্রু পাসে সিরাত সেই একই রকমভাবে গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল জালে ঠেলে দিলে জয় অনেকটাই মুঠোয় চলে আসে বাংলাদেশের। বাকি সময়ে একইভাবে ভারতীয়দের আর কোনো সুযোগ না দিয়ে সেই ঐতিহাসিক জয় ছোঁয় বাংলাদেশ। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় বাংলাদেশ সেমিফাইনালে শক্তিশালী নেপালকেও এড়িয়েছে। ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে তারা খেলবে ভুটানের বিপক্ষে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে