দর্পণ ডেস্ক : ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম পুলিশের উদ্দেশ্যে বলেছেন, রাজনৈতিক মিছিল মিটিংয়ে যাতে কোনো ধরনের প্রাণহানির ঘটনা না ঘটে সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। এছাড়া দুর্গাপূজাকে সামনে রখে পুলিশকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।
তিনি বলেছেন, ঢাকা মহানগরের পূজামণ্ডপে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে ঘটতে না পারে সেজন্য আমাদের সকলকে পূজা চলাকালীন পরিশ্রম করতে হবে।
বুধবার সকালে ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় কমিশনার এসব কথা বলেন।
কমিশনার বলেন, এ বছর পূজামণ্ডপে আনসার সদস্য স্থায়ীভাবে থাকবে। পুলিশকেও পূজা চলাকালে পূজামণ্ডপে অবস্থান করে দায়িত্ব পালন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, রাজনৈতিক কর্মসূচি শান্তিপূর্নভাবে পালন করলে পুলিশ বাধা দেবে না, তবে রাজনীতির নামে যারা আগুন সন্ত্রাস করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রাজনৈতিক কর্মসূচিতে সংঘাত বাড়ানোর জন্য কিছু মানুষ কাজ করে তাদের বিষয়েও সতর্ক থাকতে হবে। এসব মিছিল মিটিংয়ে যাতে কোনো ধরনের প্রাণহানির ঘটনা না ঘটে সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে বলেন তিনি। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিল, মামলা তদন্ত, চোরাই গাড়ি উদ্ধার, মাদক উদ্ধার ও মূলতবি মামলা নিস্পত্তির ক্ষেত্রে আরো গুরুত্ব আরোপ করেন। এছাড়া ইভটিজিং প্রতিরোধে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারে কাজ করার কথা বলেন তিনি।
মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভার শুরুতেই গত আগস্ট মাসের খাতওয়ারী অপরাধ চিত্র বা অপরাধ বিবরণী পর্যালোচনা করা হয়। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় অপরাধ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলকে বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা প্রদান করেন তিনি।
সভায় ঢাকা মহানগরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও জননিরাপত্তা বিধানসহ ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে শ্রেষ্ঠ পুলিশ অফিসারদের পুরস্কৃত করেন ডিএমপি কমিশনার। এ সভায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ৮টি ক্রাইম বিভাগের মধ্যে যৌথভাবে প্রথম হয়েছে তেজগাঁও বিভাগ ও মিরপুর বিভাগ। তবে ওয়ারেন্ট তামিল করে শ্রেষ্ঠ হয়েছে উত্তরা বিভাগ। শ্রেষ্ঠ থানা হয়েছে মোহাম্মদপুর থানা। সহকারী পুলিশ কমিশনারদের মধ্যে প্রথম হয়েছেন তেজগাঁও বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মুজিব আহম্মেদ পাটওয়ারী।
পুলিশ পরিদর্শক তদন্তদের মধ্যে প্রথম হয়েছেন মুগদা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুল হোসাইন। পুলিশ পরিদর্শকদের (অপারেশন্স) মধ্যে প্রথম হয়েছেন মোহাম্মদপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মো. তোফাজ্জল হোসেনসহ বিভিন্ন কর্মকর্তা।

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে