আব্দুল হক (পংকি), লন্ডন : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যুক্তরাজ্য শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। যিনি যুক্তরাজ্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত কর্মী হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং সব সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীর দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বার্তা নিয়ে। যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করার জন্য দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এই নেতা। দেশে থাকাকালীন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির মাধ্যমে হাতেখড়ি। যুক্তরাজ্যে অবস্থানকালে যুক্তরাজ্য শাখা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন সফল ও দক্ষভাবে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যুক্তরাজ্য শাখার নেতাকর্মীদের তার রাজনৈতিক দূরদর্শিতা এবং কর্মীবান্ধব কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধ করেছেন। যুক্তরাজ্যের যেখানেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের প্রোগ্রাম হবে, সেখানেই এই কর্মীবান্ধব নেতা তার নেতৃত্বের গুণাবলির কারণে সবার মনে জায়গা করে নেন। প্রধানমন্ত্রী ও তার ছোট বোন জাতির পিতার কনিষ্ঠ কন্যার অত্যন্ত আস্থাভাজন এই কর্মীবান্ধব ও পরিশ্রমী মানুষটি। তিনি তার কর্মদক্ষতায় সবার কাছে প্রিয় ব্যক্তি ও নেতা হিসেবে পরিচয় লাভ করেছেন। শুধু রাজনীতিই নয়, মানবিক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডে এই নেতার জুড়ি মেলা ভার। যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের যে কোনো বিপদে এগিয়ে আসেন তিনি। ১৫ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাজ্য আগমন উপলক্ষ্যে যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত সব নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। যুক্তরাজ্যে প্রধানমন্ত্রীর অবস্থানকালে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা যাতে কোনো বিশৃঙ্খলা করতে না পারে সে ব্যাপারে তিনি দক্ষভাবে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের অপতৎপরতা প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি শুধু যুক্তরাজ্যেই নয়, তার গ্রামের বাড়ি সিলেট জেলার ওসমানীনগর থানাধীন বুরঙ্গা ইউনিয়নের (সিলেট সংসদীয় আসন-২) সাধারণ মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে একজন দক্ষ সংগঠক, দানশীল, মানবতার ফেরিওয়ালা ও কর্মীবান্ধব-পরিশ্রমী মানুষ হিসেবে পরিচিত। বাংলাদেশের সব স্থানীয় এবং জাতীয় নির্বাচনে দলীয় নির্দেশনায় সুদূর যুক্তরাজ্য থেকে সিলেটে এসে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণার কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখেন। তিনি যেমন তার জন্মস্থানে জনপ্রিয় ও কর্মীবান্ধব, ঠিক তেমনি যুক্তরাজ্যেও সমানভাবে সবার কাছে প্রিয় ব্যক্তি।
দর্পণ প্রতিদিনের লন্ডন শাখা প্রতিনিধি তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি জাতির পিতার আদর্শের সৈনিক, আমি প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন কর্মী হয়ে সারা জীবন তার নির্দেশমতো নিজ জন্মভূমি ও যুক্তরাজ্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় কর্মকাণ্ডে নিজেকে আমৃত্যু জড়িয়ে রাখব। আমি রাজনীতিতে কিছু পাই বা না পাই, সেটা বড় কথা নয়- নেত্রীর নির্দেশ পালন করাই আমার জীবনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে